1. admin@janatarsokal.com : admin :
  2. Mdzahidhassan977@gmail.com : MD Zahid Hasan : MD Zahid Hasan
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০২ অপরাহ্ন

সাহিত্যিককে ‘হেয়’ করে প্রশ্ন: তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২২
  • ১১ বার

চলমান এইচএসসি-সমমান পরীক্ষায় কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের বাংলা দ্বিতীয়পত্রের প্রশ্নে সাহিত্যিক আনিসুল হককে হেয় করাসহ বিভিন্ন বৈষম্যমূলক উদ্ধৃতি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সেই অভিযোগ খতিয়ে দেখতে বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) তিন সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কারিগরি। কমিটিকে পরবর্তী তিন কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

কারিগরি বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর খান জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বাংলা দ্বিতীয়পত্রের পরীক্ষার প্রশ্নে একজন খ্যাতিমান সাহিত্যিককে এভাবে হেয় করা খুবই দুঃখজনক। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখতে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামানকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরিদর্শক খালেদ হোসেন এবং উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ (ডিপ্লোমা) মোহাম্মদ শাহিন কাওসার সরকার।

আলী আকবর খান বলেন, এ কমিটিকে আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদনে জমা দিতে বলা হয়েছে। এটি আসলে একটা মানহানিকর বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সব বোর্ডে কেন এ ধরনের কাজ করছে, কী কারণে করছে সেটি জানা দরকার। এজন্য আমি খুবই দুঃখিত। প্রশ্ন আসলে বোর্ডের পক্ষে দেখা সম্ভব হয় না। শিক্ষক প্রশ্ন প্রণয়ন করার পর মডারেটররা সেটি যাচাই-বাছাই করে চূড়ান্ত করেন। শিক্ষকরা শিক্ষিত মানুষ হয়ে অশিক্ষিত কাজ করছেন, এটি দুঃখজনক। তবে দ্রুত অপরাধীদের খুঁজে বের করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: এইচএসসি: এবার কারিগরি বোর্ডের বাংলার প্রশ্নে সাহিত্যিককে ‘হেয়’ করে প্রশ্ন

তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান জাগো নিউজকে বলেন, বাংলা দ্বিতীয়পত্রের প্রশ্নে কয়েকটি বিষয় নিয়ে বির্তক উঠেছে। সেসব খতিয়ে দেখা হবে। যেহেতু প্রশ্নটি একজন শিক্ষক করেছেন, সেহেতু তাকে চিহ্নিত করা সহজ হবে। প্রশ্ন প্রণয়নকারী শিক্ষক কেন এ ধরনের বিষয় পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্নে উল্লেখ করেছেন সেটিও জানতে চাওয়া হবে।

রোববার (৬ নভেম্বর) কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি বাংলা-২-এর একটি সৃজনশীল প্রশ্নে উদ্দীপকে একজন লেখকের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, ‘২১ শে বইমেলায় তাড়াহুড়ো করে তিনি বই প্রকাশ করেন। পাঠকদের কাছে তার লেখা খাপছাড়া মনে হয়। ফলে পাঠকদের কাছে তিনি সমাদৃত হন না।’

এছাড়া একই প্রশ্নপত্রে একজন নারীকে অবজ্ঞা করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এর আগে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার বাংলা প্রথমপত্রের একটি প্রশ্নে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত নিয়ে বিতর্ক হয়। এইচএসসির প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক উসকানি তদন্ত করবে শিক্ষা বোর্ড।

একই দিনে প্রশ্নপত্রে মুদ্রণজনিত ভুলের কারণে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নতুন ও পুরোনো সিলেবাসের বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা স্থগিত করেছে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড।

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর..
© All rights reserved by janatarsokal